আন্তর্জাতিক

করোনাআক্রান্ত অস্ট্রেলিয়া থেকে ফিরেই বাংলাদেশ ডেপুটি হাইকমিশনে অঞ্জন দত্ত!

এখনই সময় :

সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়া থেকে কলকাতায় ফিরলেন গায়ক, অভিনেতা তথা পরিচালক অঞ্জন দত্ত। আর বিদেশ থেকে ফিরেই সোজা গণজমায়েতে! গোটা বিশ্বজুড়ে এমন করোনা ত্রাসের মাঝেই অঞ্জন দত্তের এহেন কাজ নিয়ে নেটদুনিয়ায় জোর সমালোচনা শুরু হয়েছে। নেটিজেনদের একাংশ প্রশ্ন তুলেছেন, সরকারের তরফে যেখানে বিদেশ ফেরত প্রত্যেককে কোয়ারেন্টাইনে যাওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, সেখানে অঞ্জন দত্তের মতো একজন বড়মাপের তারকা কীভাবে এরকম দায়িত্বজ্ঞানহীন কাজ করতে পারেন?

সোমবার অর্থাৎ ১৬ মার্চ, অস্ট্রেলিয়া থেকে ফিরে অঞ্জন দত্ত সোজা চলে গিয়েছিলেন বাংলাদেশ ডেপুটি হাইকমিশনের এক অনুষ্ঠানে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের জন্মদিন উপলক্ষে বাংলাদেশ ডেপুটি হাইকমিশনের তরফে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল। কলকাতা বিমানবন্দর থেকে বেরিয়ে সেখানেই সোজা চলে যান অঞ্জন দত্ত। আর সে ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই সোশ্যাল মিডিয়ায় জোর সমালোচনার সম্মুখীন হতে হয় অঞ্জন দত্তকে। এককথায়, নেটিজেনদের রোষানলে পড়েছেন। তাঁদের মধ্যে একাংশ আবার শিল্পীর দায়িত্বশীলতা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন। কিন্তু এমন পরিস্থিতি অঞ্জন দত্ত নিজে কী বললেন?

নেটদুনিয়ায় কড়া সমালোচনার পর অঞ্জন দত্ত এক সংবাদমাধ্যমের কাছে এই প্রসঙ্গে মুখ খুলেছেন। তাঁর কথায়, অস্ট্রেলিয়া থেকে ফিরে বিমানবন্দরে অঞ্জন দত্ত-সহ তাঁর গোটা ব্যান্ডকেই থার্মাল চেকআপ করানো হয়েছিল। রিপোর্ট নেগেটিভ আসাতেই তিনি কলকাতার বাংলাদেশ ডেপুটি হাইকমিশনে যাবেন বলে মনস্থির করেন। এপ্রসঙ্গে অঞ্জনের সাফ কথা, তিনি মাত্র মিনিট খানেকের জন্যই অনুষ্ঠানে গিয়েছিলেন। শুধুমাত্র নিমন্ত্রণ রক্ষার খাতিরে। সেদিন সেখানে ভিড় ছিল না। অনেকটা দূর থেকেই কথা বলেছেন সকলের সঙ্গে। কোনও খাবার মুখেও তোলেননি। এমনকী কারও সঙ্গে করমর্দনও করেননি।

পাশপাশি অঞ্জন দত্ত এও জানান যে, তিনি একজন দায়িত্বশীল নাগরিক বলেই নিজের সমস্ত অনুষ্ঠান বাতিল করে দিয়েছেন। আপাতত ব্যক্তিগতভাবে কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন অঞ্জন দত্ত।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
Close