লাইফষ্টাইল

করোনাভাইরাস আক্রান্ত দেশ থেকে বাংলাদেশে এলে কী করবেন?

এখনই সময় :

চীন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে দুই হাজার ৮৭০ জনে। নতুন করে মৃত্যু হয়েছে ৩৫ জনের। এ ছাড়া শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত রোববার আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে অন্তত ৮০ হাজার জনে। নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৫৭৩ জন। খবর দ্য স্ট্রেইটস টাইমসের।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত দেশগুলো থেকে বাংলাদেশে আসা মানুষদের ঘরে থেকে ‘স্বেচ্ছা কোয়ারেন্টিনের’ পরামর্শ দিয়েছে জাতীয় রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান-আইইডিসিআর।

আইইডিসিআর-এর পরিচালক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা গণমাধ্যমকে বলেন, ভাইরাস ছড়িয়ে পড়া ঠেকাতে সচেতন হতে হবে। সতর্ক থাকার জন্য পরামর্শ দেয়া হচ্ছে। যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, অস্ট্রেলিয়া এবং থাইল্যান্ডে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রথম মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছে। যুক্তরাজ্যে এখনও পর্যন্ত ২৩ জন আক্রান্ত হওয়ার খবর জানা গেছে।

ডা. সেব্রিনা ফ্লোরা বলেন, চীন ফেরত বাংলাদেশি ও অন্য দেশের নাগরিকদের কোয়ারেন্টিনে রাখার কথা বলা হয়েছিল। তবে এখন আক্রান্ত যে সব দেশে লোকাল ট্রান্সমিশন বা স্থানীয় সংক্রমণ আছে সে সব দেশ থেকে আসা মানুষদেরও কোয়ারেন্টিনে থাকা উচিত।

হাজার হাজার কোটি টাকার ক্ষতির আশঙ্কা

করোনাভাইরাসে হাজার হাজার কোটি টাকার ক্ষতির আশঙ্কা কথা বলা হচ্ছে। অর্থনৈতিক ক্ষতির আশঙ্কা রয়েছে চীন, দক্ষিণ কোরিয়া, ইরান ও ইতালির। কারণ হিসেবে তিনি জানিয়েছেন, চীন ছাড়াও ইতালি এবং ইরান থেকে করোনাভাইরাস অন্য দেশে ছড়িয়ে পড়ার প্রবণতা লক্ষ্য করা গেছে।

এ ছাড়া সিঙ্গাপুর ও থাইল্যান্ডসহ লোকাল ট্রান্সমিশন রয়েছে এমন ১৭টি দেশ রয়েছে। এ ছাড়া প্রতিদিনই নতুন নতুন দেশে ভাইরাসটি ছড়িয়ে পড়ছে। এ সব দেশ থেকে যারা আসবেন তাদের কোয়ারেন্টিনে থাকা উচিত বলছে আইডিসিআর।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
Close