বিনোদন

যুবককে ১২ ঘণ্টা যৌন অত্যাচার, গ্রেপ্তার স্পিলবার্গকন্যা!

এখনই সময় :

কয়েক দিন আগেই পর্ননায়িকা হওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন। এবার তাঁর বিরুদ্ধেই গুরুতর অভিযোগ উঠল। জোর করে আটকে রেখে টানা ১২ ঘণ্টা লাগাতার যৌন অত্যাচার করার অভিযোগে গ্রেপ্তার হয়েছেন বিশ্ববন্দিত পরিচালক স্টিভেন স্পিলবার্গের দত্তককন্যা মিকাইলা।

এমনকী, পর্ন ছবিতে জোর করে অভিনয় করানোরও অভিযোগও উঠেছে মিকাইলার বিরুদ্ধে। শনিবার ন্যাসভ্যালি, টেন থেকে গ্রেপ্তার হন তিনি।

গার্হস্থ্য সহিংসতার অভিযোগের ভিত্তিতে গ্রেপ্তার করা হয় ২৩ বছর বয়সি মিকাইলা স্পিলবার্গকে। আপাতত পুলিশি হেফাজতে রয়েছেন তিনি। এবং ৭২ হাজার টাকার জরিমানাও হয়েছে এই পর্ন অভিনেত্রীর। এই বিষয়ে মিকাইলার বাগদত্তা চুক পানকো যদিও তাঁর পাশে থেকেই বলেছেন, ‘মিকাইলা কারোর সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করেনি। কোথাও কিছু ভুল বোঝাবুঝি হচ্ছে বলে আমার মনে হয়।’

এক ব্যক্তি প্রায় ১২ ঘন্টা আটকে রেখে মারধর এবং যৌন অত্যাচারের অভিযোগ এনেছেন মিকাইলার বিরুদ্ধে। মিকাইলা অবশ্য এই অভিযোগের বিরুদ্ধে সাফাই দিতে গিয়ে সমাজব্যবস্থার দিকেই তোপ দেগেছেন। তাঁর কথায়, বেশ কিছুদিন ধরে তিনি এবং তাঁর সঙ্গী চুক পানকো পর্ন ভিডিও প্রযোজনা করছেন। এমনকী নিজেও পতিতাবৃত্তির জন্য লাইসেন্সের আবেদন জানিয়েছেন। এছাড়া একমাত্র সঙ্গী চুকের সঙ্গে তিনি যৌনসঙ্গমে লিপ্ত হয়ে পর্ন ছবি বানান। কাজেই তাঁর এবং চুকের পর্ন ভিডিওর চাহিদা বেড়ে যাওয়াতেই বোধহয় অন্যান্যরা ঈর্ষান্বিত। তাই এসব ইচ্ছাকৃতভাবে কেউ প্ররোচণা দিচ্ছে।

প্রসঙ্গত, ১৯৯৬ সালে মিকাইলাকে দত্তক নেন স্টিভেন স্পিলবার্গ ও তাঁর স্ত্রী কেট ক্যাপস। ক্যারিয়ার শুরুর কথা তিনিও ভেবেছেন। তবে একটু অন্যভাবে। স্পিলবার্গের মেয়ে যখন, তখন তিনিও যে ডিরেক্টরস হ্যাট মাথায় দিয়ে ‘অ্যাকশন-কাট’-এর কাজ করবেন, সেটাই ভেবেছিলেন অনুরাগীরা। কিন্তু না। সেই পথে হাঁটেননি মিকাইলা। ফিল্মের দুনিয়াতে এসেছেন, কিন্তু পর্নফিল্মে।

মিকাইলার কথায়, ‘আমি বরাবরই কামুক প্রকৃতির মানুষ। এই নিয়ে আগেও আমাকে সমস্যায় পড়তে হয়েছে। অন্যকিছু নয়, এখানকার মানুষ এর সঙ্গে কমফর্টেবল নয়। আমি এমন একটা কাজ করতে চাই, যা অন্যদের সন্তুষ্ট করে।’

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
Close