মুক্তমত

বিতর্ক নয়, ভালো বইয়ের প্রচারণাকে উৎসাহিত করুন

এখনই সময় :

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় আমাদের অনেক সম্মানিত লেখক নিজের লেখা বই বা অন্যের লেখা বই নিয়ে আলোচনায় বেশ সরব। এ নিয়ে আবার অনেকে নেতিবাচক মন্তব্য করছেন। কেউ কেউ বলছেন এটা তো প্রকাশকের কাজ, লেখক কেন করবেন! আবার কারো কারো আক্রমণ বেশ সীমাহীনও হয়ে উঠছে। আমি সাধারণত বিতর্কিত বিষয় নিয়ে কথা বলি না। তবে এ বিষয়টি আমার কাছে বিতর্কিত মনে হয়নি। আমার মনে হয়েছে,এটাকে কেউ কেউ বিতর্কিত করার চেষ্টা করছে।

বইয়ের প্রচারণা সবকালেই কখনো লেখক, কখনো প্রকাশক, কখনো লেখক-প্রকাশক যৌথভাবে করেছেন বা করানোর ব্যবস্থা করেছেন। পত্রিকায় বুক রিভিউ এখনকার তুলনায় আগে অনেক বেশি হতো। এই রিভিউ কখনো প্রকাশক করাতেন, কখনো লেখক নিজে তার অন্য লেখক বন্ধুকে দিয়ে করাতেন, আবার অনেক লেখক নিজ উদ্যোগে যে বই তাকে মুগ্ধ করতো তার রিভিউ লিখতেন।

বই প্রথমত শিল্প, দ্বিতীয়ত পণ্য। পণ্যের প্রসার কিন্তু প্রচারেই হয়, ভালো বিপণনে হয়। সুতরাং প্রকাশনা শিল্পের স্বার্থে, শক্তিশালী রিডিং সোসাইটির প্রয়োজনে, সৃজনশীল জাতি নির্মাণের প্রয়াস থেকেই আমাদের লেখক-প্রকাশক নির্বিশেষে সকলকে নিরবচ্ছিন্নভাবে এ কাজটি করে যেতে হবে। তবে হ্যাঁ, অবশ্যই লেখক যেমন ভালো লেখা নিশ্চিত করবেন, ঠিক তেমনই প্রকাশকও নান্দনিক উন্নত প্রকাশনা নিশ্চিত করবেন। পাঠক যেন সবসময়ই লাভবান হোন।

এ প্রসঙ্গে James Patterson -এর Master class-এর একটি লেকচার বেশ মনে পড়ছে। আমরা সকলেই জানি, এই সময়ে পৃথিবীর সবচেয়ে সাড়া জাগানো ও জনপ্রিয় লেখক James Patterson. গত বছর সারা পৃথিবীতে তাঁর বই বিক্রি হয়েছে ৩০০ মিলিয়ন কপি। তিনি রয়্যালিটি পেয়েছেন ৯০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। প্রিয় লেখক James Patterson-এর ওই লেকচারের শিরোনাম- Book Marketing, The Patterson Way. এখানে তিনি লেখক হিসেবে নিজে যা করেন, অন্য লেখকদেরও তা করতে পাঁচটি টিপস দিয়েছেন –

1. Brand Yourself

2. Create Tagline

3. Use Social Media

4. Advertise

5. Push Your Publisher.

আশা করি বন্ধুরা, এখন পুরো বিষয়টি অনেকটাই উন্মোচিত। আসুন, বিতর্ক নয়, ভালো বইয়ের প্রচারণাকে সর্বাত্মকভাবে উৎসাহিত করি।

লেখক: চেয়ারম্যান, পাঞ্জেরী পাবলিকেশন্স লিমিটেড।

 

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
Close