সারাদেশ

বাঘায় নকলমুক্ত পরীক্ষা কেন্দ্র

এখনই সময়:

পরীক্ষাকেন্দ্রের সামনে ডিজিটাল ব্যানারে লেখা নকলমুক্ত পরীক্ষা কেন্দ্র। পাশেই আরেকটি ব্যানারে পরীক্ষার্থীদের আসন বিন্যাস। অনেকটা ব্যতিক্রমী এ আয়োজন রাজশাহীর বাঘায়। সেখানে চলতি এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের ভোগান্তি কমাতে নানা পদক্ষেপ নিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন। সেই সাথে প্রশ্নপত্র ফাঁস ও নকল ঠেকাতে নেয়া হয়েছে উদ্যোগ।

সূত্র জানায়, বাঘা উপজেলার ৯ টি কেন্দ্রে কোড নম্বরসহ ডিজিটাল ব্যানারে দেয়া হয়েছে পরীক্ষার্থীদের আসন বিন্যাস। ‘নকলমুক্ত কেন্দ্র’ ঘোষনার মাধ্যমে একধরনের মানসিক চাপ তৈরী করা হয়েছে। সেই সাথে প্রশ্নপত্র ফাঁস ঠেকাতে নেয়া হয়েছে সব ধরণের প্রস্তুতি। এ অবস্থায় সোমবার সকাল সাড়ে ৯ টায় কলম আর প্রবেশপত্র হাতে নিয়ে নিজ নিজ পরীক্ষা কেন্দ্রে শিক্ষার্থীরা প্রবেশ করেছে ঝামেলা ছাড়াই। কার রোল নম্বর কোন কেন্দ্রে পড়েছে তা জানতে বেগ পেতে হয়নি। পরীক্ষার আগের দিন উপজেলার ৯ টি কেন্দে প্রশাসন ডিজিটাল ব্যানারে লিখে দিয়েছে আসন বিন্যাস। পরীক্ষা কেন্দ্রের এ ধরণের পরিবেশে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন অভিভাবক ও শিক্ষার্থীরা।
উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আরিফুল ইসলাম বলেন, ‘গুজবসহ নানা অভিযোগ ঠেকাতে নেয়া হয়েছে কঠোর পদক্ষেপ। কেন্দ্রের ২শ’ গজের মধ্যে সব ধরনের যাতায়াত নিয়ন্ত্রন করা হয়েছে। উপজেলার সকল ফটোকপির দোকান পরীক্ষা চলাকালিন সময় বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।’
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহিন রেজা বলেন, ‘দেশের সবচেয়ে বড় পাবলিক পরীক্ষা হিসাবে বিবেচনা করা হয় এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষাকে। সকলের সহযোগিতায় এখানে সুন্দর ও নকলমুক্ত পরিবেশে পরীক্ষা গ্রহণ শুরু হয়েছে।’

চলতি বছর বাঘার ৯টি কেন্দ্রে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করছে ৩ হাজার ৫৪ জন পরীক্ষার্থী। তাদের মধ্যে সাধারণ শাখায় ২ হাজার ৩৫৭ জন, মাদরাসায় ১৮৮ ও এবং ভকেশনাল শাখায় ৫০৯ জন পরীক্ষার্থী রয়েছে।

আরও সংবাদ

মন্তব্য করুন

Back to top button