বিনোদন

‘আমার মৃত্যু হলেও দেশ নাটক-এর স্বপ্ন থামবে না’

এখনই সময় :আগামী ২৪ ও ২৫ জানুয়ারি সন্ধ্যা সাতটায় শিল্পকলা একাডেমির পরীক্ষণ থিয়েটার হলে প্রদর্শিত হবে দেশ নাটকের ২৩তম প্রযোজনা ‘জলবাসর’। দীর্ঘ কর্মযজ্ঞ ও কঠোর পরিশ্রম শেষে নাটকটির প্রথম মঞ্চায়নের মাত্র পাঁচদিন আগে পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করেন দলের প্রধান ও এই নাটকের অভিনয় নির্দেশক ইশরাত নিশাত। একে তো শোকাহত দলের প্রতিটি কর্মী, দু’য়ে সময়ও ঘণ্টায় মাপা। তারপরও না থামার শপথ নিয়েছে দেশ নাটক। শোককে শক্তিতে পরিণত করে নাটকটির সফল মঞ্চায়নের পথে এগোচ্ছে কর্মীরা। পেছন থেকে সাহস যোগাচ্ছে ইশরাত নিশাতের বলে যাওয়া আদেশ, ‘আমার মৃত্যু হলেও দেশ নাটক-এর স্বপ্ন থামবে না।’

গত রবিবার রাতে রাজধানীর গুলশানে বোনের বাসায় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান বিশিষ্ট নাট্যস্বজন ইশরাত নিশাত। মারা যাওয়ার আগে মাসুম রেজা রচিত নাট্যকার নির্দেশিত নাটক ‘জলবাসর’ এর সঙ্গেই ছিলেন এই পথিতযশা নাট্যব্যক্তিত্ব। নাটকটি মঞ্চে আনতে দলীয় প্রধানের পাশাপাশি একজন কর্মী হিসেবে দিনরাত পরিশ্রম করেছেন ৫৬ বছর বয়সী নিশাত। মঞ্চ থেকে লাইট, কস্টিউম থেকে অভিনয় সকল ক্ষেত্রে রেখেছেন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা।

নাট্যকার মাসুম রেজা বলেন, ‘‘এই নাটকের অভিনয় শৈলীটা ভিন্ন আঙ্গিকে করার আপ্রাণ চেষ্টা ছিলো আমাদের। বলতে গেলে, সেই পুরা কাজটাই করেছে নিশাত। এজন্য দলের অনেকেই নিশাতকে অভিনয় নির্দেশক বলতো। কিন্তু সে সবাইকে বকা দিয়ে বলেছে, ‘এ কথা কখনো বলবি না।’ নিশাতের এই নিষেধটা অমান্য করেই আমরা তাকে অভিনয় নিদের্শক হিসেবে ঘোষণা করছি।’’

ইশরাত নিশাত নাট্যদল ‘দেশ নাটক’–এর প্রতিষ্ঠাকালীন সদস্য ও দীর্ঘদিন দলীয় প্রধানের দায়িত্ব পালন করেছেন। মঞ্চে একাধারে অভিনেত্রী, নির্দেশক ও আবৃত্তিশিল্পী হিসেবে খ্যাতি কুড়িয়েছেন। তাঁর নির্দেশনায় দেশ নাটক প্রযোজনা ‘অরক্ষিতা’ সর্বমহলে প্রশংসিত হয়। অসংখ্য নাটক ও আবৃত্তি প্রযোজনায় মঞ্চ ও আলোক নির্দেশকের কাজ করেছেন তিনি।

আরও সংবাদ

মন্তব্য করুন

Back to top button