লাইফষ্টাইল

টিভি-মোবাইলে আসক্তিতে সন্তানের যেসব ক্ষতি

এখনই সময় :সন্তানের প্রতি সবসময় যত্নশীল হতে হবে। কারণ শৈশব থেকে তার সব ধরনের বাড়তি যত্ন প্রয়োজন। এ ছাড়া সন্তান কি করছে তার প্রতি খেয়াল রাখা প্রয়োজন।

অনেক শিশু আছে স্কুল ছাড়া খুব একটা ঘরের বাইরে বের হয় না। এ ছাড়া পড়া শেষ হলে ঘরে বসে সারাদিন টিভি দেখে। বাইরে খেলতে যায় না। এতে শিশুর মানসিক বিকাশ চরমভাবে ব্যাহত হয়। শিশুর খেলাধুলা যেমন প্রয়োজন, তেমনি তাকে বাইরে ঘুরতে নেয়া প্রয়োজন।

একাধিক পরিসংখ্যান বলছে, শিশু ও কিশোর-কিশোরীদের ৮০ শতাংশই বিভিন্ন কারণে শরীরচর্চা বিমুখ। এসব কারণে আপনার সন্তানের শরীর, মনের বিকাশে বাধা পড়তে পারে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (হু) রিপোর্ট বলছে, শিশুদের শরীর ও মনের বিকাশের ক্ষেত্রে অন্যতম বাধা হলো তাদের শরীরচর্চা না করা। সমীক্ষাটি বলছে, ১৪৬ দেশের শিশুদের মধ্যে দেখা গেছে– মাত্র চারটি দেশ ছাড়া আর সব দেশেই মেয়েশিশুর চেয়ে ছেলেশিশুরা বেশি সক্রিয়।

সাম্প্রতিক একাধিক পরিসংখ্যান বলছে, গোটা বিশ্বের ১১ থেকে ১৭ বছর বয়সী শিশু ও কিশোর-কিশোরীদের ৮০ শতাংশই বিভিন্ন কারণে শরীরচর্চা বিমুখ। শরীরচর্চা বিমুখ বেশিরভাগ শিশু মোবাইল ফোন, অ্যানড্রয়েড গেম, ভিডিও গেম, টিভি দেখার প্রতি অতিরিক্ত আশক্তির ফলে শরীরচর্চা বিমুখ হয়ে পড়েছে। এ ছাড়া সুযোগ, সঙ্গী এবং উপযুক্ত জায়গার অভাবে শরীরচর্চা করতে পারে না অনেক শিশু।

আসুনি জেনে নিই শিশুদের নিয়মিত শরীরচর্চা কেন প্রয়োজন–

১. হৃৎপিণ্ড ও ফুসফুস সুস্থ রাখতে।

২. হাড় ও পেশি শক্ত করতে।

৩. মানসিকভাবে সুস্থ রাখতে ও ওজন কমাতে।

শিশুদের শরীরচর্চা না করার কারণ-

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সমীক্ষার রিপোর্ট থেকে জানা যায়, পড়াশোনার অতিরিক্ত চাপ ও মোবাইলই হলো শিশুদের শরীরচর্চা না করার অন্যতম কারণ।

কী করবেন? ১. দৌড়ানোর অভ্যাস ও সাইকেল চালানো শেখান।

২. সাঁতার কাটানোর অভ্যাস করুন।

৩. ফুটবল খেলতে দিন।

৪. যদি সম্ভব হয়, তা হলে জিমন্যাস্টিক শেখান।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
Close