সারাদেশ

নিহত হৃদয়ের ফলাফলে চোখ ভিজল মা-বাবা-শিক্ষকের

এখনই সময়  :লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে নিহত শিশু মোশারেফ হোসেন হৃদয় পিইসি সমাপনী পরীক্ষায় জিপিএ-৪.৭৫ পেয়েছে। মঙ্গলবার (৩১ ডিসেম্বর) বিকেলে ফলাফল প্রকাশের তার মা-বাবা, শিক্ষক ও সহপাঠীরা হাউমাউ করে কান্না শুরু করেন। এ সময় একে অপরকে জড়িয়ে ধরেও শান্তনা দেওয়ার ভাষা খুঁজে পাচ্ছিলেন না। উপজেলার চরমার্টিন গ্রামে হৃদয়ের বাড়ির আশপাশের মানুষও দুঃখ প্রকাশ করেছেন।

জানা গেছে, গত ২২ ডিসেম্বর বাড়ির সামনে খেলার সময় গাছের পাতা ছিড়তে গিয়ে কাঠের সঙ্গে ধাক্কা লেগে হৃদয় মাটিতে পড়ে যায়। আহত অবস্থায় উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নেওয়ার পথে সে মারা যায়।

মোশারেফ হোসেন হৃদয় (১১) চরমার্টিন গ্রামের দেলোয়ার হোসেনের ছেলে। সে একই গ্রামের পূর্ব মার্টিন শিশু নিকেতন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে পিইসি সমাপনী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছিল। প্রকাশিত ফলাফলে জিপিএ-৪.৭৫ পেয়ে কৃতকার্য হয়। কিন্তু সামান্য দুর্ঘটনায় নিহত হওয়ায় হৃদয় তার ফলাফলের বিষয়ে জানতে পারেনি। এ নিয়ে তার মা-বাবা কান্নায় ভেঙে পড়েছেন।

হৃদয়ের বাবা দেলোয়ার হোসেন কান্নাজড়িত কণ্ঠে বলেন, সামান্য দুর্ঘটনায় আমার ছেলেটি পৃথিবী ছেড়ে চলে গেছে। শ্রেণিকক্ষে শিক্ষার্থীদের মধ্যে সে প্রথম ছিল। তার সমাপনী পরীক্ষার ফলাফলটিও সে দেখে যেতে পারেনি।

পূর্ব মার্টিন শিশু নিকেতন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক খোরশেদ আলম বলেন, আমার প্রতিষ্ঠানের ৩৩ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছে। এরমধ্যে হৃদয়ের সবচেয়ে ভালো ফলাফল এসেছে। সে খুব মেধাবী ও শান্ত ছিল। তার মৃত্যু আমাদের জন্য খুব কষ্টের ছিল।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
Close