রাজনীতি

ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্যের কড়া সমালোচনায় বিএনপি

এখনই সময় :সংখ্যালঘু নির্যাতন নিয়ে ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহর বক্তব্য প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক পরিবহনমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের দেওয়া বক্তব্যকে ‘ভারত তোষণনীতি’ বর্ণনা করে সমালোচনা করেছে বিএনপি।

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ২৩ ডিসেম্বর ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্য কোনোভাবেই সমর্থনযোগ্য নয়। ভারতের সংসদে পাস হওয়া ‘বিতর্কিত’ নাগরিক সংশোধনী আইন (সিএএ) ও নাগরিকপঞ্জি (এনআরসি) নিয়ে সেদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ যে বক্তব্য দিয়েছেন, তাতে সমর্থন দিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের সমগ্র জাতিকে স্তম্ভিত ও ক্ষুব্ধ করেছেন।

বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনে এক সংবাদ সম্মেলনে এক লিখিত বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

ক্ষমতাসীন দলের সাধারণ সম্পাদকের সমালোচনা করে ফখরুল বলেন, অমিত শাহের বক্তব্যকে সমর্থন করতে গিয়ে নিজেদের আদর্শিক পিতা শেখ মুজিব সরকারের সময়কালকে প্রশ্নবিদ্ধ করতেও যে বিন্দুমাত্র দ্বিধা করেন না, ওবায়দুল কাদেরের অবস্থান সেটাই প্রমাণ করে। কারণ ভারতের পার্লামেন্টে যে বিতর্কিত বক্তব্য দিয়েছেন অমিত শাহ সেখানে শুধুমাত্র বিএনপি সময়কালকেই নয়, শেখ মুজিবের ৭১ পরবর্তী সরকার এবং বর্তমান অবৈধ সরকারকেও সরাসরি অভিযুক্ত করেছেন। অমিত শাহর বক্তব্যই তার সুস্পষ্ট প্রমাণ।

এদিকে জন্মসূত্রে বাংলাদেশি কোনো নাগরিক ভারত থেকে এলে তাকে গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন। তার এ বক্তব্যের সমালোচনা করে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘তারা স্বীকার করে নিচ্ছেন যে পুশ ব্যাক, পুশ ইন হচ্ছে। বাংলাদেশকে ডাম্পিং গ্রাউন্ড বানিয়েছে।’

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, সেলিমা রহমান, ইকবাল হাসান মাহমুদ, জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ প্রমুখ।

আরও সংবাদ

মন্তব্য করুন

Back to top button