সারাদেশ

জমির বিরোধ নি‌য়ে হিন্দু যুব‌কের হা‌তে মুস‌লিম যুবক খুন, গ্রেফতার-৮

ব‌রিশাল প্র‌তি‌নি‌ধি : বরিশালের বাকেরগঞ্জের ছোট পুইয়াউটা গ্রামে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে ছুরিকাঘাতে এক কলেজছাত্র খুন হয়েছেন। নিহত সজিব কারিগর উপজেলার মহেশপুর ডিগ্রী কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থী। এ ঘটনায় পুলিশ ঘাতক শুভ্রত সরকার (১৮) সহ আটজনকে আটক করেছে।

এলাকা সূত্রে জানা যায়, উপজেলার নিয়ামতি ইউনিয়নের ছোট পুইয়াউটা গ্রামের নিহত সজিব কারিগরের পিতা রাজ্জাক কারিগরের সাথে একই গ্রামের পরিমল সরকার ও সকানাথদের সাথে জমিজমা নিয়ে বিরোধ চলছে। গতকাল ২২ ডিসেম্বর রোববার সকাল সাড়ে ৭টার সময় সকানাথরা ওই বিরোধীয় জমির মাটি কাটে। এ খবর জানতে পেরে নিহত সজিবের চাচা তৈয়ব আলী কারিগর ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের মাটি কাটতে বাধা দিলে সকানাথ ও পরিমল সরকাররা ধারালো অস্ত্র ও লাঠিসোটা নিয়ে তার উপর হামলা করে। এই ঘটনা শুনে নিহত সজীব তার চাচাতো বোন সাজেদা ও ভগ্নিপতিকে নিয়ে তাকে বাঁচাতে গেলে বখাতে শুভ্রত সরকার তার বুকে ছুরিকাঘাত করে। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। নিহত সজিবের লাশ পোস্টমর্টেমের জন্য বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে মূল ঘাতক শুভ্রত সরকারসহ ৮ জনকে গ্রেপ্তার করেছে। ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী নিহত সজীবের চাচাতো বোন সাজেদা বেগম (৩৪) ও ফুফু রাজিয়া বেগম (৩৫) জানান, তাদের সামনেই ঘাতক শুভ্রত কলেজ নিহত সজীবকে ছুরি মেরে রক্তাক্ত করে। এ সময় পবিত্র নামের একটি ছেলে ভিডিও করছিল। তারা সজিবকে বাঁচানোর জন্য বারবার অনুরোধ জানালেও সে কোন কর্ণপাত না করে হত্যাকান্ডের ভিডিও করে।

সাজেদা বেগম কান্নাজড়িত কণ্ঠে সাংবাদিকদের নিকট হত্যাকাণ্ডের সহায়তার অভিযোগে ভিডিও ধারণকারী পবিত্রকে আটক করে ওই ভিডিও উদ্ধারের দাবি জানান। ঘটনার পরপর বরিশালের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার খন্দকার রকিব আহমেদ ও সহকারী পুলিশ সুপার সদর সার্কেল আনোয়ার সাঈদ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার খন্দকার রশিদ আহমেদ সাংবাদিকদের জানান, কলেজ ছাত্র সজীবের হত্যাকারী কাউকেই ছাড় দেয়া হবে না। অপরাধী যেই হোক তাকে আইনের আওতায় এনে বিচারের মুখোমুখি করা হবে। এ ঘটনা যাতে কেউ ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে না পারে সেজন্য তিনি উপস্থিত সাংবাদিক ও স্থানীয়দের সহযোগিতা কামনা করেন।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
Close