সারাদেশ

রাজশাহী-ঢাকা রুটে রেলওয়ের অগ্রিম টিকিট বিক্রি বন্ধ

রাজশাহী রেলওয়ে স্টেশন থেকে রাজশাহী-ঢাকা রুটের আগাম টিকিট বিক্রি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। গত দুই দিন ট্রেনের আগাম টিকিট বিক্রি করা হচ্ছে না। এই স্টেশন থেকে আগামী ২৭ ডিসেম্বর পর্যন্ত কোনও আগাম টিকিট পাওয়া যাবে না। ফলে ২৮ ডিসেম্বর থেকে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত রেলে ভ্রমণেচ্ছুরা আগাম টিকিট কাটতে পারছেন না। সমস্যাটি সাময়িক বলে জানিয়েছে পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ।

রাজশাহী রেলওয়ে স্টেশনের ম্যানেজার আব্দুল করিম বলেন, ‘গত দুইদিন আগাম টিকিট বিক্রি বন্ধ রয়েছে। এ সমস্যা সাময়িক। ১ জানুয়ারি থেকে পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের টাইম শিডিউলে কিছুটা পরিবর্তন আসছে। এছাড়া পশ্চিমাঞ্চল রেলের ঢাকা-রাজশাহী রুটে চলাচলকারী প্রতিটি আন্তঃনগর ট্রেনের নতুন করে আসন বিন্যাস করা হচ্ছে। পরিবর্তন হচ্ছে বিভিন্ন ট্রেনের র‌্যাক। চূড়ান্ত আসন বিন্যাস হাতে পেলে আবারও রাজশাহী-ঢাকা রুটের আগাম টিকিট বিক্রি শুরু হবে।’

তিনি বলেন, ‘পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের ঢাকা-রাজশাহী রুটের বিরতিহীন আন্তঃনগর বনলতা এক্সপ্রেস, আন্তঃনগর সিল্কসিটি এক্সপ্রেস, আন্তঃনগর পদ্মা এক্সপ্রেস ও আন্তঃনগর ধুমকেতু এক্সপ্রেস চলাচল করছে। উল্লেখিত সকল ট্রেনের র‌্যাক (ট্রেনের সব কোচ মিলে একটি র‌্যাক) পরিবর্তন হচ্ছে। ফলে সকল আন্তঃনগর ট্রেনের আসন বিন্যাসও হচ্ছে নতুন করে। তাই আসন বিন্যাস চূড়ান্ত না হওয়া পর্যন্ত এ রুটের আগাম টিকিট বিক্রি করা যাচ্ছে না।’

তিনি আরও বলেন, ‘বর্তমানে একটি র‌্যাকের মাধ্যমে বনলতা এক্সপ্রেস ট্রেনটি দুইদিক থেকে চলাচল করে। এতে ট্রেনটি কোনও কারণে একদিকে বিলম্ব ঘটালে পরদিন শিডিউল ঠিক রাখা যায় না। এছাড়া মাত্র দুইটি র‌্যাক দিয়ে পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের রাজশাহী-ঢাকা-রাজশাহী রুটে চলাচল করছে সিল্কসিটি, পদ্মা এক্সপ্রেস ও ধূমকেতু এক্সপ্রেস নামের তিনটি আন্তঃনগর ট্রেন।’

তিনি বলেন, ‘যে ট্রেনটি সিল্কসিটি হয়ে ঢাকায় যায় সেটি ফেরার সময় ধূমকেতু হয়ে আবার রাজশাহীতে ফেরে। বনলতার জন্য বিপরীতমুখী দুটি আলাদা র‌্যাক না থাকায় বিরতিহীন ট্রেনটির শিডিউল ঠিক রাখা যাচ্ছে না। ফলে একটি অতিরিক্ত র‌্যাক যা ভারত থেকে আমদানিকৃত কোচের মাধ্যমে সংযোজন করা হচ্ছে। এছাড়া অন্য আন্তঃনগর ট্রেনগুলোতেও নতুন কোচ সংযোজন বিয়োজন করা হচ্ছে।’

নতুন র‌্যাকটি অপেক্ষমাণ থাকবে রাজশাহী স্টেশনে। ফলে রাজশাহীতে আন্তঃনগর চারটি ট্রেনের জন্য চারটি র‌্যাক থাকছে। এতে কোনও একটি ট্রেনে রাজশাহীতে ফিরতে বিলম্ব হলে অপেক্ষমান র‌্যাকটি দিয়ে ফিরতি ট্রেনটি ঠিক সময়ে গন্তব্যের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাবে। এজন্যই বনলতায় ভারতীয় কোচ সংযোজন করা হচ্ছে। অন্যগুলোর কোচও সংযোজন বিয়োজন করা হচ্ছে বলে জানান তিনি।’

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
Close