স্পোর্টস

মোস্তাফিজ-তাসকিনদের তুলোধুনো করে খুলনার সহজ জয়

বঙ্গবন্ধু বিপিএলের ১৩তম ম্যাচে রংপুর রেঞ্জার্সকে ৮ উইকেটে হারিয়েছে খুলনা টাইগার্স। টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ৯ উইকেটে ১৩৭ রানের সংগ্রহ পায় রংপুর। জবাবে ১২.৩ ওভারে জয়ের বন্দরে পৌঁছে যান খুলনা। দলের হয়ে রিলি রৌসু ৩১ বলে ৬৬ রানে অপরাজিত ছিলেন।

এই জয়ের ফলে বঙ্গবন্ধু বিপিএলে নিজেদের প্রথম তিন ম্যাচই জিতল খুলনা। আর রংপুর তাদের প্রথম চার ম্যাচেই হারল।

শুক্রবার চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরি স্টেডিয়ামে টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিং করার সিদ্বান্ত নেন খুলনা টাইগার্সের অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। ব্যাট হাতে নেমে মোহাম্মদ নাইমকে নিয়ে মারমুখী মেজাজে শুরু করেছিলেন আফগানিস্তানের উইকেটরক্ষক মোহাম্মদ শাহজাদ। কিন্তু বেশি দূর যেতে পারেননি তিনি। পাকিস্তানের মোহাম্মদ আমিরের বলে আউট হওয়ার আগে ৭ বলে ১১ রান করেন শাহজাদ।

এরপর মিডল-অর্ডারের দু’ব্যাটসম্যান দক্ষিণ আফ্রিকার ক্যামেরন ডেলপোর্ট ও নাদিফ চৌধুরীকে ফিরিয়ে দিয়ে রংপুরকে চাপে ফেলেন পেসার শফিউল ইসলাম। পরে খুলনার বোলারদের উপর চড়াও হন মোহাম্মদ নাঈম। ধীরে ধীরে লড়াইয়ে ফিরতে থাকে রংপুর। কিন্তু রান আউটের ফাঁদে পড়ে ৪৯ রানে থামেন নাঈম। দলীয় ৯৪ রানে পঞ্চম ব্যাটসম্যান হিসেবে আউট হন নবী। এ অবস্থায় দলকে সম্মানজনক স্কোরে পৌঁছে দিতে লড়াই শুরু করেন ফজলে ও ইংল্যান্ডের লুইস গ্রেগরি। মারমুখী ছিলেন ফজলে। শেষ পর্যন্ত ফজলেকে থামিয়ে খুলনাকে ব্রেক-থ্রু এনে দেন শফিউল। ৩৩ বলে ৪২ রান করে শফিউলের তৃতীয় শিকার হন ফজলে। বেশি দূর যেতে পারেননি গ্রেগরিও। ২টি চারে ২০ বলে ২২ রান করেন তিনি। শেষ পর্যন্ত ৯ উইকেটে ১৩৭ রানের সংগ্রহ পায় রংপুর।

১৩৮ রানের লক্ষে ব্যাট করতে নেমে দলীয় ২৪ রানে মোস্তাফিজুর রহমানের বলে ফিরে যান নাজমুল হোসাইন শান্ত। এরপর দলকে এগিয়ে নেন রিলি রৌসু ও রহমানুল্লাহ গুরবাজ। ২২ বলে ৩৭ রান করে মুকিদুলের বলে আউট হন গুরবাজ। এরপর রিলি রৌসুকে নিয়ে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়েন দলীয় অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। রৌসু ৬৬ ও মুশফিক ১৭ রানে অপরাজিত ছিলেন।

মোস্তাফিজুর রহমান দুই ওভারে ১৮ রান, মুকিদুল ইসলাম ৩ ওভারে ২৮ রান, মোহম্মদ নবী ‍দুই ওভারে ২১ রান, আরাফাত সানি ২.৩ ওভারে ২৮ রান ও তাসকিন আহমেদ ৩ ওভারে ৩৯ রান দেন।

 

আরও সংবাদ

মন্তব্য করুন

Back to top button