জাতীয়

মোবাইল-কম্পিউটার কেনায় ঋণ দেবে ব্যাংক,

 

কম্পিউটার, ল্যাপটপ, মোবাইল ও ট্যাবের মতো ডিজিটাল ডিভাইস কেনার জন্য ব্যাংক থেকে ৭০ শতাংশ পর্যন্ত ঋণ নিতে পারবেন আগ্রহীরা। এ বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগ থেকে সোমবার একটি সার্কুলার জারি করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

 

অর্থাৎ একটি মোবাইলের দাম যদি ১০ হাজার টাকা হয়, সেক্ষেত্রে ব্যাংক থেকে ৭ হাজার টাকা পর্যন্ত ঋণ নেওয়া যাবে। আর বাকি ৩ হাজার টাকা দিতে হবে গ্রাহককে। ভোক্তা ঋণের আওতায় কোনো গ্রাহক চাইলেই এই সুবিধা নিতে পারেন।

প্রসঙ্গত, প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের মহামারির কারণে গত বছরের ১৭ মার্চ থেকে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। এ অবস্থায় শিক্ষা কার্যক্রম চালিয়ে নিতে অনলাইনের মাধ্যমে চলছে ক্লাস। এতে শিক্ষক, শিক্ষার্থী এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে বেড়েছে ডিজিটাল ডিভাইসের ব্যবহার। কিন্তু অনেকের পক্ষেই, বিশেষ করে শিক্ষার্থীদের জন্য এসব ডিভাইস কেনা কষ্টকর।

 

অন্যদিকে, সরকারের রূপকল্প ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’ গড়ার অংশ হিসেবে নির্ভরযোগ্য ডিজিটাল অভিগমন এবং তথ্যপ্রযুক্তি সমৃদ্ধ মানবসম্পদ উন্নয়নে তৃণমূল পর্যায় পর্যন্ত আইসিটি খাতে অর্থায়নকে উৎসাহিত করা হচ্ছে। এ অবস্থায় বাংলাদেশ ব্যাংক জানিয়েছে যে, ভোক্তা ঋণের আওতায় গ্রাহকের অনুকূলে উল্লিখিত ডিজিটাল ডিভাইস কেনা বাবদ ঋণ বিতরণের ক্ষেত্রে বিদ্যমান ঋণ-মার্জিন অনুপাত ৩০:৭০ এর পরিবর্তে সর্বোচ্চ ৭০:৩০ অনুপাত অনুসরণ করা যাবে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংক সূত্রে জানা গেছে, ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগ থেকে সোমবার এ বিষয়ে একটি সার্কুলার জারি করে তা দেশে কার্যরত সকল তফসিলি ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) এবং প্রধান নির্বাহীর (সিইও) কাছে পাঠানো হয়েছে। সার্কুলারে বাংলাদেশ ব্যাংক জানিয়েছে, এ নির্দেশনা অবিলম্বে কার্যকর হয়ে পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত বহাল থাকবে।

আরও সংবাদ

Back to top button