আন্তর্জাতিক

সহকর্মী কে প্রকাশ্যে চুমু…

সহকর্মীকে প্রকাশ্যে চুমু খেয়ে সমালোচনার মুখে পদগত্যাগ করলেন ব্রিটিশ স্বাস্থ্যমন্ত্রী ম্যাট হ্যানকক। করোনায় সামাজিক দুরত্ব না মেনে সহকর্মীকে চুমু খাওয়ার দৃশ্য ভাইরাল হলে অনেকটা চাপের মুখেই পদত্যাগ বাধ্য হয়েছেন তিনি। তার পদত্যাগ পত্র গ্রহণের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন।

শুক্রবার (২৫ জুন) বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কর্মী গিনা কোলাডঅ্যাঞ্জেলো নামের ওই সহকারীকে ম্যাট হ্যানকক নিজেই নিয়োগ দেন। গত ৬ মে’র তোলা তাদের একটি অন্তরঙ্গ ছবি সংবাদমাধ্যমসহ সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হয়ে যায়।

নিজ মন্ত্রণালয়ের ভেতর এমন কর্মকাণ্ডে পদত্যাগের দাবি উঠে। কিন্তু এ ঘটনা আর বেশি দূর গড়াতে দিতে চাইনি ডাউনিং স্ট্রিট। এমনকি তাকে ক্ষমতা করে দেওয়া হয়েছে বলেও জানা যায়।

কিন্তু সব কিছু ছাপিয়ে শনিবার পদত্যাগ পত্র জমা দিয়েছেন ব্রিটিশ স্বাস্থ্যমন্ত্রী। একইসঙ্গে চুমুর ঘটনায় ক্ষমাও চেয়েছেন তিনি। পদত্যাগ পত্র পেয়ে দুঃখ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। বরিস হ্যানককে বিশেষভাবে ধন্যবাদ জানান। তিনি বলেন, ‘কোভিডের সময় স্বাস্থ্য খাতে আপনার সহযোগিতা সত্যিই প্রশংসনীয়’।

গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়, হ্যানকক ও কোলাডঅ্যাঞ্জেলো দু’জনই বিবাহিত। তাদের তিনটি করে সন্তানও রয়েছে। তাঁদের অন্তরঙ্গ ছবি গত ৬ মে স্বাস্থ্য বিভাগের ভেতরেই তোলা হয়। কোভিডের সংক্রমণের সময় দায়িত্বশীল মন্ত্রী হয়েও স্বাস্থ্যবিধি না মানায় কঠোর সমালোচনার মুখে পড়েন তিনি। এমনকি বিরোধীদল থেকেও তার বিরুদ্ধে পদত্যাদের দাবি উঠলে দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়ালেন ব্রিটিশ স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

 

আরও সংবাদ

Back to top button