সারাদেশ

গৌরনদীতে প্রেমিকের বাড়িতে প্রেমিকার বিষপানে আত্মহত্যা

 

গৌরনদী প্রতিনিধি

প্রেমিককে অন্যত্র বিয়ে করানোর জন্য তার পরিবার পাত্রী খোঁজায় ক্ষোভ দুঃখে ও অভিমানে প্রেমিকের বাড়িতে গিয়ে আত্নহত্যার উদ্দেশ্যে বিষপান করা কলেজ ছাত্রী ফারজানা আক্তার (২০) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বৃহস্পতিবার শেষ রাতে মারা গেছে।

সে উপজেলার নলচিড়া গ্রামের আদম আলী হাওলাদারের মেয়ে ও হোসনাবাদ নিজামউদ্দিন ডিগ্রী কলেজ থেকে এবার এইচ.এস.সি পাস করেছে।

গত ১৯শে মে বুধবার দুপুরে সে উপজেলার পশ্চিম বেজহার গ্রামে প্রেমিকের বাড়িতে বসে বিষপান করে।
নিহতের স্বজনরা জানান, কলেজ ছাত্রী ফারজানার সাথে উপজেলার পশ্চিম বেজহার গ্রামের মোঃ মোস্তফা সিকদারের ছেলে রাব্বি সিকদারের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।

দীর্ঘদিনের প্রেমের এক পর্যায়ে গত কয়েক মাস পূর্বে ফারজানা জানতে পারে যে, প্রেমিকের পরিবার তাকে অন্যত্র বিয়ে করানোর চেষ্টা চালাচ্ছে। ফলে বিয়ের দাবীতে তখন সে প্রেমিক রাব্বির বাড়িতে অবস্থান নেয়।

সে সময় প্রেমিক রাব্বির পরিবারের সদস্যরা ফারজানাকে রাব্বির সাথে সামাজিকভাবে বিয়ে দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে বুঝিয়ে শুনিয়ে পিত্রালয়ে পাঠিয়ে দেয়। এর পর প্রেমিকের পরিবার প্রতিশ্রুতি রক্ষা না করে প্রেমিক রাব্বিকে অন্যত্র বিয়ে করানোর চেষ্টা চালায়।

টের পেয়ে ফারজানা বুধবার দুপুরে পূনঃরায় প্রেমিক রাব্বির বাড়িতে গিয়ে ওঠে। এ সময় প্রেমিক রাব্বির পরিবারের সদস্যরা তার সাথে অশালিন আচরন করাসহ অশ্লীল ভাষায় ফারজানাকে গালিগালাজ করে। এতে ক্ষোভে, দুঃখে ও অভিমানে ফারজানা বিষপান করে।

প্রেমিকের পরিবারের সদস্যরা তখন তাকে গৌরনদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে ওইদিন রাতে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়।

সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত বৃহস্পতিবার রাত ৩টার দিকে (বুধবার দিবাগত রাত ফারজানা মারা যায়।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে গৌরনদী মডেল থানার ওসি (তদন্ত) মোঃ তৌহিদুজ্জামান সোহাগ জানান এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

আরও সংবাদ

Back to top button