সারাদেশ

কালকিনিতে সাংবাদিককে লাঞ্চিত, ক্ষোভ

এখনই সময়, মাদারীপুর  প্রতিনিধি :  কালকিনিতে এক সাংবাদিককে  সদ্য নির্বাচিত পৌর মেয়র কর্ত্তৃক লাঞ্চিত করা হয়েছে, হাত পা ভেঙ্গে দেয়ার হুমকি প্রদান করা  হয়েছে  বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। নিরাপত্বহীনতায়  ওই সাংবাদিকের পরিবার ।

মাদরীপুরের কালকিনি উপজেলা  প্র‌েসক্লাবের সাধারন সম্পাদক ও দৈনিক ইনকিলাবের কালকিনি প্রতিনিধি মো.ইকবাল হোসেনকে শুক্রবার সন্ধায় ভুরঘাটা মজিদবাড়ি এলাকায় বসে লাঞ্চিত করা হয়েছে।

সাংবাদিক ইকবাল জানান, সদ্য সমাপ্ত কালকিনি পৌর নির্বাচন এর  পরে নৌকা মার্কার প্রার্থী এস এম হানিফ বিজয়ী  হবার পর থেকে  তার সমর্থরা  স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থদের  বাড়ি ঘরে হামলা লুটপাট চালায়।  ঘটে যাওয়া  ঘটনা নিয়ে আমি একটি প্রতিবেদন আমার ফেসবুক পেইজে পোস্ট করি।  শুক্রবার সন্ধায় কালকিনি উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি সাহাবুদ্দিন মিঠুর ব্যবসায়ীক প্রতিষ্ঠানে গেলে  মেয়রের  কথা  বলে তার দু  জন সমর্থক এসে রিপোর্টটি ডিলেট দিতে  সাশিয়ে যায়। উপস্থিত  কৃষকলীগ নেতা মিঠু  ফকির ও উপজেলা আ:লীগের  যুগ্ন সাধারন  সম্পাদক মীর মামুন । তারাও মেয়র এর পক্ষে আমাকে ডিলেট দিতে  অনুরোধ করেন। আমি রিপোর্টটি ডিলেট করে দেই। এর কিছুক্ষন  পরেই  দু জন  সমর্থক এসে  বলেন, মেয়র  সাহেব আপনাকে যেতে  বলেছে আমি  রওয়ানা  হলে মেয়র সাহেব রাম্তায় চলে আসেন, আমাকে তিনি (মেয়র ) গালিগালাজ করেন,এবং হাত পা ভেঙ্গে দেয়ার  হুমকি প্রদান করেন। মুহুর্তেই  তার সাথে থাকা  কয়েকজন সমর্থক চর থাপ্পর ও ধাক্কা মেরে রাস্তায় ফেলে দেয়  লাঞ্চিত করে।

এবিষয়ে  নব নির্বাচিত পৌর মেয়র এস এম হানিফ এর সাথে কথা বলার জন্য  তার মুঠোফোনে বার বার চেস্টা  করা  হলেও  তার  বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।

সাংবাদিক ইকবাল আরও জানান, তিনি একজন সম্মানীয় লোক,তার কাছ থেকে এমনটা আশা  করিনি।  মামলা বা জিডি করবেন কি না জানতে চাইলে ইকবাল  জানান,কোনো লাব হবে না ,শুধু আরও  হয়রানী হতে  হবে।

এঘটনায় কালকিনি ও মাদারীপুরের সাংদিকদের মাঝে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে ।

আরও সংবাদ

Back to top button