জাতীয়লিড নিউজ

সফরের দ্বিতীয় দিনে মোদির সাথে প্রধানমন্ত্রীর বৈঠক

এখনই সময়   : সফরের দ্বিতীয় দিন প্রধানমন্ত্রী কাযালয়ে আসেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।এসময় তাঁকে অভ্যর্থনা জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।ফুল দিয়ে স্বাগত জানানো হয় বন্ধু রাষ্ট্র ভারতের প্রধানমন্ত্রীকে।

 

পূর্ব নির্ধারিত কর্মসূচি অনুযায়ী একান্তে বৈঠক করেন দুই প্রধানমন্ত্রী।আলোচনা হয় উভয় দেশের স্বার্থ সোংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয় নিয়ে।

পরে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে বসেন দুই নেতা।ব্রিফিংয়ে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম জানান প্রায় ৪০ মিনিটের বৈঠকে তিস্তাসহ অভিন্ন নদীর পানি বন্টন, রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন, আঞ্চলিক যোগাযোগ সহ বাংলাদেশ ও ভারতের পারস্পরিক বিভিন্ন  বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়।তিস্তার পানি বন্টন প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন সিদ্ধান্ত হলেও এখন পযন্ত  চুক্তি হয়নি।জবাবে ভারতের প্রধানমন্ত্রী অভিন্ন নদীর পানি যৌক্তিক বণ্টনের বিষয়ে তাঁর সরকারের অবস্থান তুলে ধরেন।শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের দ্রুত অগ্রগতিরও উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী।রোহিঙ্গা ইস্যুর সমাধানে প্রধানমন্ত্রী ভারতের আরও সক্রিয় ভূমিকা প্রত্যাশা করলে নরেন্দ্র মোদী বাস্তচ্যূত এ জনগোষ্ঠীর টেকসই প্রত্যাবাসনে দিল্লির অবস্থান পূর্ণব্যক্ত করেন।

দুই প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে আনুষ্ঠানিক বৈঠকের পর দুযোর্গ ব্যবস্থাপনা, বাণিজ্য, তথ্য প্রযুক্তিসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে সহযোগিতা বাড়াতে স্বাক্ষরিত পাঁচটি সমঝোতা নোট বিনিময় হয়।এগুলো হলো দুযোগ ব্যবস্থাপনা, অভিযোজন এবং প্রশমন সম্পর্কিত এমওইউ, বাংলাদেশ ন্যাশনাল ক্যাডেট কোর ও ভারতের অনুরুপ প্রতিষ্ঠানের মধ্যে সমঝোতা, অপরটি বাণিজ্য সম্প্রসারণে অশুল্ক বাধা দূর করতে সহযোগিতা ফ্রেমওয়ার্ক প্রতিষ্ঠা বিষয়ক।এছাড়া স্বাক্ষরিত সমঝোতার অপর দুটি হলো দুদেশের ডিজিটাল সার্ভিস অ্যান্ড এমপ্লয়মেন্ট অ্যান্ড ট্রেনিং সেন্টারের জন্য তথ্যপ্রযুক্তি সরঞ্জাম, কোর্সওয়্যার ও রেফারেন্স বই সরবরাহ এবং প্রশিক্ষণ সহযোগিতা বিষয়ক, শেষ সমঝোতা স্মারকটি রাজশাহী কলেজ মাঠ এবং আশেপাশের এলাকায় খেলাধুলার সুবিধা প্রতিষ্ঠা বিষয়ে

 

এছাড়া দুই প্রধানমন্ত্রী উদ্বোধন করেন শিলাইদহের কুঠিবাড়ির সংস্কার কাজের সম্প্রসারণ প্রকল্প এবং তিনটি সীমান্ত হাট।ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করা হয় রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের ‘পাওয়ার ইভাকুয়েশন ফ্যাসিলিটিজ’ নির্মাণ প্রকল্প।ভারতের উপহারের ১২ লাখ ডোজ করোনাভাইরাসের টিকা এবং ১০৯টি অ্যাম্বুলেন্সের চাবি অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হস্তান্তর করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

 

আশুগঞ্জে যৌথ বাহিনীর শহীদদের স্মরণে একটি স্মৃতি ফলক স্থাপনের পাশাপশি দুই প্রধানমন্ত্রী উদ্বোধন করেন ঢাকা ও নতুন জলপাইগুড়ির মধ্যে যাত্রীবাহী ট্রেন মিতালী এক্সপ্রেস। বাংলাদেশ-ভারত কূটনৈতিক সম্পর্কের ৫০ বছর পূর্তিতে একটি স্মারক ডাকটিকিট অবমুক্ত করা হয় এ অনুষ্ঠানে। এছাড়া দুই নেতা  মুজিবনগরের মেহেরপুর থেকে নদীয়া হয়ে কলকাতা পর্যন্ত স্বাধীনতা সড়ক চালুর বিষয়ে একটি ভিডিও প্রত্যক্ষ করেন।

 

মুজিব জন্মশতবর্ষ ও বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীর অনুষ্ঠানে যোগ দিতে  শুক্রবার সকালে দুই দিনের সফরে ঢাকা ঢাকা আসেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

লেখা ও তথ্য  : সাখাওয়াত মুন

আরও সংবাদ

Back to top button