সারাদেশ

গৃহবধুর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার শশুর গ্র‌েফতার

ম.নামজুল হাসান :

 

রংপুর জেলার মিঠাপুকুর উপজেলায় বিয়ের সাত মাস পর রোকসানা বেগম (১৯) নামে এক গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তাকে পিটিয়ে হত্যা করে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে রাখার অভিযোগে শ্বশুর ও দেবরকে আটক করা হয়েছে।

 

বুধবার(১০ মার্চ) বিকালে রোকসানার শ্বশুর বাড়ির শয়নকক্ষ থেকে ফাঁসিতে ঝুলন্ত অবস্থায় তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

 

নিহত নববধূ রোকসানা বেগম উপজেলার ইমাদপুর ইউনিয়নের রহমতপুর পাইলচড়া গ্রামের শাহিন মিয়ার স্ত্রী।

 

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, উপজেলার ইমাদপুর মধ্যপাড়া গ্রামের আবদুর রহিমের মেয়ে রোকসানার সঙ্গে প্রায় সাত মাস আগে  বিয়ে হয় শাহিন মিয়ার। শাহিন মিয়া স্ত্রীকে বাড়িতে রেখে ঢাকায় পোশাক কারখানায় কাজ করেন। স্বামীর অনুপস্থিতির কারণে বাড়িতে রোকসানার সাথে প্রায় সময় ঝগড়া লাগাতো শ্বশুর, দেবর ও শ্বাশুড়ী। এ নিয়ে সংসারে অশান্তি চলে আসছিল।

 

বুধবার সকালে পারিবারিক অশান্তির জেরে রোকসানাকে পিটিয়ে হত্যার পর মরদেহ ঘরের মধ্যে ঝুলিয়ে রেখেছিল বলে নিহতের বাবা দাবি করেছেন।

 

খবর পেয়ে বিকালে পুলিশ ওই গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।

 

মিঠাপুকুর থানার ওসি আমিরুজ্জামান বলেন, রোকসানা নামের ওই গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় নিহতের শ্বশুর আবদুর রাজ্জাক ও দেবর সোহেল রানাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।  নিহতের বাবা আবদুর রহিম বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

 

আরও সংবাদ

Back to top button