সারাদেশ

বাবুগঞ্জে বাহেরচর ব্যবসায়ী সমিতির রাজসিক অভিষেক ও শপথ

"অধিক মুনাফা ও মজুতদারি বন্ধে ভূমিকা রাখতে হবে"-শেখ টিপু সুলতান

আরিফ আহমেদ মুন্না বাবুগঞ্জ উপজেলার ঐতিহ্যবাহী বাহেরচর বাজার ব্যবসায়ী সমিতির নবনির্বাচিত কার্যনির্বাহী কমিটির অভিষেক ও শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার (৭ নভেম্বর) বিকেলে বাহেরচর বাজারের মুক্তমঞ্চে রাজসিক ওই অভিষেক অনুষ্ঠানে নবনির্বাচিত নেতৃবৃন্দদের শপথ পাঠ করান অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি বরিশাল-৩ (বাবুগঞ্জ- মুলাদী) আসনের সাবেক সংসদ সদস্য ও ওয়ার্কার্স পার্টির জেলা সম্পাদক অ্যাডভোকেট শেখ মোঃ টিপু সুলতান। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগ সম্পাদক এস.এম খালেদ হোসেন স্বপন এবং জাতীয় পার্টির উপজেলা সভাপতি মকিতুর রহমান কিসলু।

প্রধান নির্বাচন কমিশানার মোজাম্মেল হোসেন আকনের সভাপতিত্বে অভিষেক অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথিদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল মান্নান মাস্টার, বাহেরচর আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ইউসুফ আলী, বাহেরচর বাজার ব্যবসায়ী সমিতির নবনির্বাচিত সভাপতি শাহ আলম বেপারি, দেহেরগতি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুর রশিদ মোল্লা, ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি মতিউর রহমান কালু মাস্টার, যুবমৈত্রীর সিনিয়র সহ-সভাপতি কে.এম বজলুল রহমান মিন্টু প্রমুখ। বাহেরচর বাজার ব্যবসায়ী সমিতির অভিষেক ও শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন নির্বাচন পরিচালনা কমিটির উপদেষ্টা বাংলাদেশ ছাত্রমৈত্রীর কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি সুজন আহমেদ।

অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথিদের মধ্যে এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আমির হোসেন মাস্টার, অধ্যক্ষ দেলোয়ার হোসেন, যুগ্ম-সম্পাদক মোঃ কামাল হোসেন, কেদারপুর ইউপি চেয়ারম্যান নূরে আলম বেপারি, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মোঃ কামাল হোসেন, কেদারপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সম্পাদক মাহবুবুল আলম মাসুম মৃধা, সাংগঠনিক সম্পাদক সেলিম জমাদ্দার, তরুণ সমাজসেবক আবু বকর সিদ্দিক সরদার প্রমুখ। এসময় বাহেরচর বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সম্পাদক বজলুর রহমান আকনসহ নবনির্বাচিত কার্যনির্বাহী কমিটির সকল সদস্য ছাড়াও আওয়ামী লীগ, ওয়ার্কার্স পার্টি ও জাতীয় পার্টিসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক সংগঠনের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

অভিষেক ও শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতাকালে বরিশাল-৩ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট শেখ মোঃ টিপু সুলতান বলেন, ‘বাবুগঞ্জ উপজেলার ঐতিহ্যবাহী বাহেরচর বাজার ব্যবসায়ী সমিতির নির্বাচনটি অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের একটি মডেল হিসেবে আজ সর্বজন স্বীকৃত হয়েছে। নবনির্বাচিত নেতৃবৃন্দকে ব্যবসায়ী সংগঠনের স্বার্থরক্ষার পাশাপাশি নীতি ও সততার সঙ্গে ব্যবসা পরিচালনা করতে হবে। অধিক মুনাফা এবং মজুতদারি বন্ধে ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দকে কার্যকরী ভূমিকা রাখতে হবে। নজিরবিহীন এই নির্বাচন অনুষ্ঠানের আয়োজন এবং তা সফল করার জন্য ছাত্রমেত্রীর কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি ছাত্রনেতা সুজন আহমেদকে অভিনন্দন।’

এদিকে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ সম্পাদক এস.এম খালেদ হোসেন স্বপন বলেন, বাহেরচর বাজারের নির্বাচনটি একটি ব্যবসায়ী সমিতির নির্বাচন হলেও এর ব্যাপকতা ও গুরুত্ব ছিল অপরিসীম। আওয়ামী লীগের সহায়তায় সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের চ্যালেঞ্জ নিয়ে ছাত্রনেতা সুজন আহমেদ শতভাগ সফল হয়েছেন। এখন হারজিত এবং দল-মতের বিভেদ ভুলে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ার অঙ্গীকার নিয়ে সবাইকে একযোগে কাজ করতে হবে।’

উল্লেখ্য, নজিরবিহীন পুলিশি নিরাপত্তা ও ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে গত ৩০ সেপ্টেম্বর বাবুগঞ্জ উপজেলার ঐতিহ্যবাহী বাহেরচর বাজার ব্যবসায়ী সমিতি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। মাত্র ৭৪ জন ভোটারের ওই নির্বাচন হলেও এতে জাতীয় নির্বাচনের মতোই প্রায় ৩ মাস আগে তফসিল ঘোষণা এবং মনোনয়ন পত্র বিক্রি ও প্রত্যাহারসহ মাসাধিককাল ধরে দিনরাত প্রচার-প্রচারণায় সরগরম হয়ে উঠেছিল গোটা বাহেরচর এলাকা। পোস্টার-ব্যানারে ছেয়ে গিয়েছিল বাহেরচর বাজার। নির্বাচনে মনোনীত ৫ সদস্যদের নির্বাচন কমিশনের মাধ্যমে ভোটার তালিকা প্রণয়ন, প্রতীক বরাদ্দ, ব্যালট পেপার ছাপানো, ব্যালট বাক্স, সিল এবং ভোটকক্ষে দুইটি বুথ নির্মাণসহ নিরপেক্ষ ভোটগ্রহণের জন্য সবধরনের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করা হয়। ওই নির্বাচনে ১১টি পদের বিপরীতে ২২ জন প্রার্থী অংশ নিলেও সেখানে তাদের কয়েক হাজার কর্মী-সমর্থকদের সমাগম ঘটে। ফলে নির্বাচনে গোলযোগের আশংকায় বাবুগঞ্জ থানার দুই ওসির নেতৃত্বে এক প্লাটুন পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছিল।

আরও সংবাদ

Back to top button