জাতীয়

বৃদ্ধাকে নির্যাতনের প্রতিবাদে মানববন্ধন”

খ.ম. নাজাকাত হোসেন সবুজ। ব্যুরো প্রধান খুলনাঃ বাগেরহাট জেলাধীন ফকিরহাটের বৃদ্ধা মায়ের ওপর নির্যাতনের প্রতিবাদে ছেলের শাস্তির দাবীতে মানববন্ধন কর্মসুচি পালন করেছে এলাকাবাসি। উপজেলার পাগলা শ্যামনগর গ্রামের শেখ আক্কাস আলীর ছেলে ওমর আলী দীর্ঘদিন ধরে মা জোহরা বেগমকে নির্যাতন করে আসছে। এরই প্রতিবাদে শুক্রবার দুপুরে মহাসড়কের ফকিরহাটের তৈয়ব আলী বটতলা এলাকায় এই মানববন্ধন কর্মসুচি পালন করে। মানববন্ধনে বক্তব্য দেন, নির্যাতনের শিকার বৃদ্ধা মা জোহরা বেগম, বোন নিলুফা ইয়াসমিন, গ্রামবাসি দেলেয়ার হোসেন, ইউনুস আলী, শিরিন আক্তার, শওকত আলী মোল্লা, ছত্তার হাওলাদারসহ আরও অনেকে। মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, প্রায় ১০ বছর ধরে ছেলে শেখ ওমর আলী তার বাবার সব সম্পত্তি জোর করে দখলে নিয়ে বৃদ্ধ বাবা ও মাকে কোন প্রকার ভরনপোষন দেয় না। এবিষয়ে প্রতিবাদ করলেই বাবা ও মায়ের ওপর উল্টো শারিরিক ও মানসিক নির্যাতন চালায়। ওমর আলী সে আপন ছোট বোনের জা’কে (বড় ভাইয়ের স্ত্রী) ফুসলিয়ে বিয়ে করেন। কোন উপায়ন্ত না পেয়ে মায়ের উপর শারিরিক নির্যাতন প্রতিবাদ ও ছেলের শাস্তির দাবিতে আমরা মানববন্ধন পালন করছি। নির্যাতনের শিকার ওমর আলীর বৃদ্ধা মা জোহরা বেগম বলেন, আমাদের ৭ বিঘা সম্পত্তি সবটুকু ভোগ দখল করে নেয় ওমর। আমাদের দুইজনকে কোন প্রকার সহায়তা করে না। এবিষয়ে যখন কোন কথা বলতে যাই তখন ওমর ও বৌ মা আমাদের ওপর নির্যাতন করে। ৪-৫ দিনে আমার ভাশুরের গাছ থেকে নারিকেল পাড়ায় সময় বাধা দিলে সে আমাকে মারধর করে। এভাবে প্রায় আমাকে ওমর মারধর করে আমি বিচার চাই। ওমর আলীর বোন নিলুফা ইয়াসমিন বলেন, আমার ভাই এতই খারাপ যে আমার ভাশুরের জা’কে (স্বামীর বড় ভাইয়ের স্ত্রী) ফুসলিয়ে বিয়ে করেন। বাবা ও মাকে খাওন পরণ দেয় না। আমাদের সম্পত্তি সব দখল করে নিয়ে এলাকার অপরাধ কর্মকান্ড করছে। আমরা তার বিচার চাই। ফকিরহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু সাঈদ মোহাম্মদ খায়রুল আনাম বলেন, মায়ের ওপর নির্যাতনের অভিযোগে থানায় একটি জিডি করা হয়েছে।

Related Articles

Back to top button
Close