আন্তর্জাতিক

লাদাখে পিছু হঠতে নারাজ চীন, ৪০ হাজার সেনা মোতায়েন

এখনই সময় :

সামরিক ও কূটনৈতিক স্তরে একাধিক বৈঠক-আলোচনার পর এখনও অব্যাহত রয়েছে ভারত ও চীনের মধ্যে সীমান্ত সংঘাত। ভারতের পক্ষ থেকে দাবি করা হচ্ছে, লাদাখ সীমান্ত থেকে এখনো পিছু হঠেনি চীনের সেনারা।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এবিপি নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়, পূর্ব লাদাখে যে সকল জায়গাগুলো নিয়ে ভারত ও চীনা সেনার মধ্যে সংঘাত চলছে, সেখান থেকে সরতে এখনও রাজি হয়নি পিপলস লিবারেশন আর্মি। সংঘাত প্রশমন করতে অঙ্গীকারবদ্ধ হচ্ছে না চীন।

প্রতিবেদনে আরো বলা হয়, সামরিক ও কূটনৈতিক স্তরে একাধিক দফার বৈঠক এবং শীর্ষস্থানীয় কর্মকর্তাদের হস্তক্ষেপ সত্বেও উত্তেজনা কমাতে চুক্তি মানতে রাজি হচ্ছে না চীন। যে কারণে, তারা পূর্ব লাদাখে প্রচুর সেনা মোতায়েন করে রেখেছে এখনও।

ভারতীয় সরকারের সূত্রের বরাত দিয়ে এবিপি নিউজ জানায়, লাদাখ সীমান্তে এখনও প্রায় ৪০ হাজার মোতায়েন করে রেখেছে চীন। প্যাঙ্গং সো(লেক)-এর ধারে ‘ফিঙ্গার ফাইভ এরিয়া’ থেকে পিছু হঠতে চাইছে না চীনা সেনারা। হট স্প্রিং এবং গোগরা পোস্টেও বহু কাঠামো তৈরি করে রেখেছে বেইজিং। ভারতের পক্ষ জানানো হয়েছিল, পরিস্থিতি স্বাভাবিক করার প্রক্রিয়া হিসেবে ওই অঞ্চল থেকে চীনা সেনাকে সরে নিজেদের স্থায়ী জায়গায় ফিরে যেতে হবে। জানা গেছে, সীমান্তের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখার কাছে ও ভেতরে মোতায়েন করা হয়েছে এয়ার ডিফেন্স সিস্টেম, আর্মার্ড ভেহিকলসহ ভারী অস্ত্র মজুদ করে চীন।

সীমান্ত সংঘাত মেটানোর উদ্দেশ্যে শেষবার গত ১৫-১৬ জুলাই বৈঠকে বসেছিল দুদেশের শীর্ষস্থানীয় সামরিক কর্তারা। কমান্ডার পর্যায়ের ওই বৈঠকে ভারত স্পষ্ট করে চীনকে জানিয়ে দেয়, সমাধান চাইলে সীমান্তে ফৌজের সংখ্যা কমাতেই হবে চীনকে। একমাত্র তবেই সীমান্তে শান্তি ও স্থিতাবস্থা ফিরবে। পিএলএ তা করতে না চাওয়ায় এখনও অধরা সমাধান।

Related Articles

Back to top button
Close