বিনোদন

দুইটা ফালতু ছেলের জন্য গলা ভাঙার দরকার নাই, ডিপজলকে সানী

এখনই সময় :

চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক হয়েও চলচ্চিত্রের উন্নয়নে কাজ করেনি, বরং ব্যক্তি স্বার্থে চলচ্চিত্রকে ব্যবহার করেছেন জায়েদ খান। তার বিভিন্ন কর্মকাণ্ডে ক্ষুব্ধ হয়ে চলচ্চিত্রের ১৮ সংগঠন মিলে জায়েদ খানকে ‘বয়কট’ করার সিদ্ধান্ত নেয়।

মঙ্গলবার (১৪ জুলাই) এফডিসিতে চলচ্চিত্রের সবগুলো সংগঠনের প্রতিনিধিরা জড়ো হয়ে মিটিংয়ে সিদ্ধান্ত নেন যে, জায়েদ খান চলচ্চিত্র থেকে বয়কট। তাকে নিয়ে কেউ কাজ করবে না।

এর প্রতিবাদে রবিবার সংবাদ সম্মেলন করেছে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি। প্রযোজক সমিতির নেতৃত্বে ঘোষিত বয়কটের সিদ্ধান্তকে শিল্পী সমিতিকে ভাঙনের চেষ্টা বলে অবহিত করেছেন। তবে এই অপচেষ্টা সফল হবে না বলে জানিয়েছেন শিল্পী সমিতির সহ সভাপতি মনোয়ার হোসেন ডিপজল। সংবাদ সম্মেলনে ডিপজল বলেন, ‘আমি ডিপজল বাঁইচা থাকতে শিল্পী সমিতিরে টোকা দিবো পৃথিবীতে এমন কেউ নাই।’

এই সংবাদ সম্মেলনে মনোয়ার হোসেন ডিপজল ৫ টি নতুন চলচ্চিত্রের ঘোষণা দিয়েছেন। চিত্রনায়ক ওমর সানী বিষয়টি সমালোচনা করেছেন। বুধবার সকালে ওমর সানী ডিপজলকে তার ফেসবুক হ্যান্ডেলে লিখেছেন, ‘আপনার কাছে অনুরোধ আপনাকে সম্মান করি, আপনি হাসির পাত্র হলে আমাদের কাছে খারাপ লাগে, দিন শেষে বলি এই দুইটা ফালতু ছেলের জন্য গলা ভাঙ্গা দরকার নাই।’

ওমর সানীর ডিপজলের ঘোষণাকে অর্থহীন উল্লেখ করে বলেন, ‘গত শিল্পী সমিতির নির্বাচন কালীন সময়ে, আপনি দশটা ছবি করার ঘোষণা দিয়েছিলেন, চলচ্চিত্রের সবাই মনে করেছিল যাক আলহামদুলিল্লাহ। শিল্পী এবং কলাকুশলী কিছুদিন স্বচ্ছভাবে থাকবে, করেননি? করেননি? আজ আবার একটা ক্রাইসিসের মধ্যে আবার পাঁচটা ছবি করার ঘোষণা দিয়েছেন? মানুষ বোঝে মামা এত বোকা না ( ডিপজল সাহেব) আপনি ঘোষণা দিয়েছিলেন সিনেমা হলের প্রজেক্টর মেশিন আনবেন করেননি।’

 

আরও সংবাদ

Back to top button