সারাদেশ

মির্জাপুরে ৪ বছরের শিশুকে যৌন নির্যাতনের অভিযোগ, গ্রেফতার ২

এখনই সময় :

মাদ্রাসার ৪ বছরের এক কন্যা শিশুকে অভিনব কায়দায় যৌন নির্যাতনের (শ্লীলতাহানির) অভিযোগ পাওয়া গেছে। থানায় অভিযোগ হওয়ার পর আজ সোমবার ঘটনার সঙ্গে জড়িত দুই বখাটে কিশোরকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃত হচ্ছে বখাটে গোড়াই ইউনিয়নের উত্তর নাজিরপাড়া গ্রামের কালু মিয়ার ছেলে ফারুক (১৩) এবং মিন্টু মিয়ার ছেলে কাওসার (১৪)। গ্রেফতারকৃতরা দুই বখাটে উল্টর নাজিরপাড়া বাগে জান্নাত মাদ্রাসার ছাত্র। টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার গোড়াই ইউনিয়নের উত্তর নাজিরপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে।

সোমবার ( ২৯ জুন) যৌন নির্যাতনের শিকার শিশু কন্যার মাতা অভিযোগ করেন, গত ২৫ জুন (বৃহস্পতিবার ) বিকেলে তার কন্যা বাড়ির পাশে বাগে জান্নাত মাদ্রাসার মসজিদে নামাজ পড়তে যায়। নামাজ শেষে বাড়ি ফেরার পথে অভিনয় কায়দায় তার শিশুকন্যাকে বখাটে ফারুক ও কাওসার জোর করে ঢেকে নিয়ে একটি দোকানে শারীরিক ভাবে যৌন নির্যাতন (শ্লীলতাহানির) চেষ্টা করে। ঘটনাটি আশপাশের লোকজন দেখে ফেলায় বখাটেরা পালিয়ে যায়।

আশপাশের লোকজন এবং শিশুকন্যা এই ঘটনা তার পরিবারকে জানায়। শিশুর পরিবারকে আইনের আশ্রয় নিতে বাঁধা দিয়ে এলাকার মাতব্বর নুরু মিয়া ও সহযোগীরা মুল ঘটনা আড়াল করতে গ্রাম্য শালিসের আশ্বস দেয়। আজ সোমবার ছিল শালিসের দিন। এই শালিসকে কেন্দ্র করে মাতাব্বরদের মধ্যে দুই গ্রুপ বিভক্ত হয়ে মারপিটের ঘটনা ঘটে। থানায় মামলা না করতে নানা ভাবে চাপ ও হুমকি দেওয়ায় নিরীহ পরিবারটি নিরাপত্তাহীনতার মধ্যে পরেন।

এদিকে শিশুকে যৌন নির্যাতনের ঘটনাটি মির্জাপুর থানা পুলিশ জানতে পেরে শিশুর পরিবারকে সার্বিক নিরাপত্তাসহ থানায় ডেকে এনে অভিযোগ নিয়েছেন। অভিযোগের পর ঘটনার সঙ্গে জড়িত বখাটে ফারুক ও কাওসারকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে মির্জাপুর থানার এসআই মোরাদ জাহান জানিয়েছেন।

এ ব্যাপারে মির্জাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. সায়েদুর রহমান বলেন, চার বছরের শিশুকে যৌন নির্যাতন (শ্লীলতনাহানির) অভিযোগ পাওয়ার দুই বখাটে গ্রেফতার করা হয়েছে। শিশু কন্যার মা বাদী হয়ে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। কেউ যেন অন্যায় ভাবে হয়রানীর শিকার না হয় এ বিষয়ে তদন্ত চলছে।

Related Articles

Back to top button
Close