আন্তর্জাতিক

প্রথমবার করোনা রোগীর সফল ফুসফুস প্রতিস্থাপন

এখনই সময় :

করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর ফুসফুস সফলভাবে প্রতিস্থাপন করা হয়েছে। এরা আগে করোনা রোগীকে বাঁচাতে এত বড় পদক্ষেপ নেননি কোনো চিকিৎসক। এটিই প্রথম কোনো করোনা রোগীর ফুসফুস প্রতিস্থাপন।

ভারতীয় বংশোদ্ভূত মার্কিন চিকিৎসক অঙ্কিত ভারতের নেতৃত্বে ২০ বছরের বয়সী এই করোনা রোগীর ফুসফুস প্রতিস্থাপন করা হয়। যুক্তরাষ্ট্রে এই অস্ত্রোপচার করা হয়।

করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর ঐ যুবকের ফুসফুস ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়। তাকে বাঁচাতে ফুসফুস প্রতিস্থাপন ছাড়া আর কোনও উপায় ছিল না বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক অঙ্কিত ভারত।

দ্য ওয়াশিংটন পোস্টের প্রতিবেদনে বলা হয়, ঐ যুবককে বেশ কয়েকদিন ধরে ভেন্টিলেশনে রাখা হয়েছিল। কিন্তু একটা সময় পর তার শরীরে অ্যান্টিবায়োটিক কাজ করা বন্ধ করে দেয়।

এরপর সেই যুবকের জন্য কৃত্রিমভাবে শ্বাস-প্রশ্বাসের ব্যবস্থা করা হয়। কিন্তু তার ফুসফুসে ইনফেকশন দেখা দেয়। তখনই ডাক্তাররা সিদ্ধান্ত নেন ফুসফুস প্রতিস্থাপন করার।

শিকাগোর নর্থওয়েস্টার্ন মেডিসিন হাসপাতাল জানিয়েছে, বেশ কিছুদিন ধরে ঐ যুবককে লাইফ সাপোর্টে রেখে কৃত্রিমভাবে শ্বাস-প্রশ্বাসের ব্যবস্থা করা হয়েছিল। পরে তার কঠিন অস্ত্রোপচার করা হয়। সে এখন বিপদমুক্ত।

থোরাসিস সার্জারির প্রধান ও নর্থ ওয়েস্টার্ন হাসপাতালের ফুসফুস প্রতিস্থাপন প্রোগ্রামের সার্জিকাল ডিরেক্টর অঙ্কিত ভারত। তিনি বলেন, ‘এটি আমার জীবনের সব থেকে কঠিন অস্ত্রোপচার ছিল। সত্যি এটি অনেক চ্যালেঞ্জের ছিল।’

ডা. অঙ্কিত জানিয়েছেন, ভবিষ্যতে করোনা সংক্রমণ কিছু রোগীর মধ্যে চূড়ান্ত আকার নিতে পারে। তখন তাদের বাঁচাতে আরো বেশি অঙ্গ প্রতিস্থাপনের প্রয়োজন হবে।

করোনা ভাইরাস ফুসফুস ছাড়াও কিডনি, হৃৎপিণ্ড, রক্তনালী এবং স্নায়ুতন্ত্রের ক্ষতি করে থাকে। তবে করোনার আক্রমণে মানবদেহে সব থেকে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয় ফুসফুস।

আরও সংবাদ

Back to top button