সারাদেশ

করোনার কাছে হেরে গেলেন করোনা যোদ্ধা মীরা রানী

এখনই সময় :

যিনি দীর্ঘদিন ধরে হাসপাতালে ভর্তিকৃত করোনা রোগীকে চিকিৎসা দিয়েছিলেন। শেষ পর্যন্ত তিনিই করোনার কাছে হেরে গেলেন। করোনার থাবায় নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রের সিনিয়র স্টাফ নার্স মীরা রানী দাস (৫৪) মৃত্যুবরণ করেছেন। বৃহস্পতিবার (১১ জুন) সকাল ১১টায় কাঁচপুরের সাজেদা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. সায়মা অফরোজ ইভা এবং মীরা রানী দাসের স্বামী সুমন কুমার দাস এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

হাসপাতালের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার ডা. আশরাফুল আমীন জানান, গত ৩১ মে করোনা উপসর্গ দেখে তার নমুনা পরীক্ষা করা হয়। নমুনা পরীক্ষার রিপোর্টে তার শরীরে কোভিট-১৯ এর উপস্থিতি শনাক্ত হলে প্রথমে তাকে বাসায় আইসোলেশনে রাখা হয়। পরে অবস্থার অবনতি হলে ৭ মে তাকে কাচঁপুরের সাজেদা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বৃহস্পতিবার সকালে তার মৃত্যু হয়।

স্বামী সুমন চন্দ্র দাস জানান, সকাল সাড়ে নয়টায় তার সাথে আমার শেষবার আইসিইউতে কথা হয়। এরপর সকাল ১১টায় মারা যায়। মীরার লাশ ঢাকার পোস্তগোলায় দাহ করা হবে।

মীরার পৈত্রিক বাড়ি টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার পাড়াগ্রাম গ্রামে। স্বামীর বাড়ি নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার মুড়াপাড়া গ্রামে। তিনি নিঃসন্তান ছিলেন।

প্রসঙ্গত, হাসপাতালের ডাক্তার, নার্স, উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিক্যাল অফিসার, স্বাস্থ্য সহকারীসহ মোট ২৩ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

আরও সংবাদ

Back to top button