সারাদেশ

চীফ হুইপের নির্দেশে শিবচরে ৪হাজার ১শ পরিবারের মাঝে ত্রাণ বিতরণ

এখনই সময় :

জাতীয় সংসদের চীফ হুইপ ও মাদারীপুর-১ (শিবচর) আসনের ৬ বারের সফল সংসদ সদস্য নূর-ই-আলম চৌধুরী লিটনের নির্দেশে মোহসেন উদ্দিন সোহেল বেপারী কাঁঠালবাড়ী ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডে সরকারী এবং তার নিজস্ব তহবিল থেকে এ পর্যন্ত ৪ হাজার ১ শ পরিবারের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী পৌঁছে দিয়েছেন।

শনিবার (০২ মে) দুপুরে সোহেল বেপারী তার নিজস্ব তহবিল থেকে করোনা আক্রান্ত বৃদ্ধ নারী মহিলার বাড়িসহ ৫০টি বাড়িতে ১০ কেজি চাউল, ২ কেজি আলু, ২ কেজি পেয়াজ, ১ কেজি মুসুরি ডাল, ১ কেজি লবণ, ১ কেজি ছোলা, ১ লিটার তেল, নগদ টাকা, কাঁচা বাজার ও ইফতারি সামগ্রী পৌঁছে দিয়েছেন।

কাঁঠালবাড়ী ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের বাবু মোল্লার কান্দি গ্রামের করোনা আক্রান্ত বৃদ্ধ নারী মহিলার ছেলে নয়ন পন্ডিত (৩২) মুঠোফোনে বলেন, ২৮ এপ্রিল আমার বাড়িসহ ৪টি বাড়ি হোম কোয়ারেন্টাইনের স্টিকার ও লাল কাপড় টাঙ্গিয়ে আশেপাশের মোট ৫০টি বাড়ি লকডাউন করে দিয়েছে উপজেলা প্রশাসন। এখন আমার মা মাদারীপুর সদর হাসপাতালের আইসোলেশনে আছে। লকডাউনের পর থেকে এ পর্যন্ত আমাগো চেয়ারম্যান সোহেল বেপারী নিজে আমাগো বাড়িসহ আরও ৫০টি বাড়িতে এসে নগদ টাকা, বিভিন্ন খাদ্য সামগ্রী, কাঁচাবাজার ও ইফতার সামগ্রী দিয়ে গেছেন।

কাঁঠালবাড়ী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাইদুর রহমান (বাদল মুন্সী) বলেন, ১৯৮৭ সাল থেকে এ পর্যন্ত প্রায় ৩৩ বছর ধরে আমি মেম্বার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছি। বিগত দিনে কোনো চেয়ারম্যানকে দেখেনি যে নিজে বাড়ি বাড়ি গিয়ে নগদ টাকা, বিভিন্ন খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দেন। সোহেল বেপারীকে দেখে মনে হচ্ছে তিনি যেন চীফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী লিটন এমপি, মজিবুর রহমান চৌধুরী(নিক্সন)এমপি ও মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা এমপির ভালো গুনগুলো অনুসরণ করছেন।

কাঁঠালবাড়ী ইউনিয়নের হাজী আব্দুল রহমান বেপারী জামে মসজিদের ইমাম মাওলানা ইয়াছিন মাহমুদ বলেন, লকডাউনের পর থেকে সোহেল বেপারী তার নিজস্ব তহবিল থেকে ইমাম, মুয়াজ্জিন ও আলেম সমাজের মাঝে নগদ টাকা, বিভিন্ন খাদ্যদ্রব্য ও ইফতার সামগ্রী বিতরণ করেছেন। এছাড়াও পবিত্র রমজান উপলক্ষে কোভিড-১৯ দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্থ অসহায় মানুষের জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র উপহার সামগ্রী ও চীফ হুইপের ব্যক্তিগত তহবিল থেকে বিভিন্ন খাদ্য সামগ্রী আমাদের মাঝে পৌঁছে দিয়েছেন।

কাঁঠালবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোহসেন উদ্দিন সোহেল বেপারী বলেন, চীফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরীর নির্দেশে কাঁঠালবাড়ী ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডে সরকারি এবং আমার নিজস্ব তহবিল থেকে এ পর্যন্ত ৪ হাজার ১শ পরিবারের ঘরে ঘরে গিয়ে ত্রাণ সামগ্রী পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। এই মহামারী করোনা ভাইরাসের শুরু থেকে আমি কাঁঠালবাড়ী ইউনিয়নে অবস্থান করে ২৪ ঘন্টা মনিটরিং করি কোন মানুষ বিপদে আছে কিনা এবং তাদের মাঝে সচেতনতা তৈরি লক্ষ্যে প্রচারণাসহ হ্যান্ড গ্লাভস, মাস্ক, সাবানসহ বিভিন্ন সামগ্রী দেওয়া শুরু করি। ইউনিয়নের প্রতিটি ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে গিয়ে সকলকে সর্তক করি। পরবর্তীতে অসহায় হতদরিদ্র ও মধ্যবিত্ত পরিবারের বাড়ি বাড়ি গিয়ে আমার নিজস্ব তহবিল থেকে এ পর্যন্ত ২০০০ হাজার খাদ্য সামগ্রী, ৫০০ ইফতারি প্যাকেট, ৫০০ শিশু খাদ্য এবং ইমামদের মাঝে নগদ ১ লক্ষ টাকাসহ প্রায় ৪ লক্ষ টাকা অসহায় জনগণের মধ্যে বিতরণ করি। আমার নেতার নির্দেশে আমার ইউনিয়নের প্রত্যেকটি জনগণের জন্য আমি কাজ করে যাচ্ছি। যাতে করে একটি পরিবার যেন অনাহারে না থাকে।

Related Articles

Back to top button
Close