রাজনীতি

ত্রাণের বিক্ষোভে ‘বিএনপির ইন্ধনের’ কথা বলেননি তথ্যমন্ত্রী

এখনই সময় :

‘দেশের বর্তমান পরিস্থিতিতে বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ সমাবেশে বিএনপির ইন্ধন আছে’ তথ্যমন্ত্রীর বরাতে পরিবেশিত এমন খবর সরিয়ে নিয়েছে বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা (বাসস)। তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ এ ধরনের কোনো কথা বা বক্তব্য দেননি বলেও তথ্য মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে সংবাদটির শিরোনাম তুলে ধরে বলা হয় গত ১৭ এপ্রিল বাসস ভুল সংবাদ পরিবেশন করেছিল। কিছুক্ষণ পরই সংবাদটি সরিয়ে নেওয়া হয়। কারণ তথ্যমন্ত্রী এ ধরনের কোনো বক্তব্য দেননি।

এর আগে গত ১৭ এপ্রিল বাসসের এক খবরে বলা হয়, ‘তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, বর্তমান করোনাভাইরাস সংক্রমণ সংকটময় পরিস্থিতিতে দেশের বিভিন্ন স্থানে যারা বিক্ষোভ-সমাবেশ করছে তাতে বিএনপির ইন্ধন রয়েছে। বর্তমান সংকটকালে বিএনপি সাহায্যের হাত না বাড়িয়ে নানাভাবে লোক ভাড়া করে বিভিন্ন এলাকায় বিক্ষোভ সমাবেশে নানাভাবে মদদ দিচ্ছে।’

রবিবার তথ্য মন্ত্রণালয়ের বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ওইদিনই ভুল খবরটি সরিয়ে সংশোধিত খবর প্রকাশ করে বাসস। সেই সঙ্গে, তথ্যমন্ত্রীর নির্দেশে ওই প্রতিবেদন যিনি লিখেছেন তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

কিন্তু তারপরও কয়েকটি গণমাধ্যমে বাসসের বরাত দিয়ে ওই সংবাদটি প্রকাশ করে। ফলে তথ্যমন্ত্রীর ওই বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়ে একটি রাজনৈতিক দলের পক্ষ থেকে বিবৃতিও দেওয়া হয়।

মন্ত্রণালয়ের ব্যাখ্যায় বলা হয়, ‘ভাড়াকরা লোক দিয়ে ত্রাণের জন্য বিক্ষোভ করায় বিএনপির ইন্ধন’এবং ত্রাণে অনিয়মে বিএনপি বা জাসদ বা অন্য কোনো রাজনৈতিক দলের নাম উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী কোনো বক্তব্য দেননি।’

‘তার বক্তব্যের অডিও-ভিডিও রেকর্ড সংরক্ষিত আছে। বিভিন্ন গণমাধ্যমে তা প্রচারও হয়েছে। যেখানে এ ধরনের কোনো বক্তব্য নেই। তাই এনিয়ে কোনো বিভ্রান্তির অবকাশ নেই।’

Related Articles

Back to top button
Close