সারাদেশ

পঞ্চগড়ে স্কুলছাত্রকে গুলি করে হত্যা করল বিএসএফ

এখনই সময় :

পঞ্চগড় সদর উপজেলার শিংরোড প্রধানপাড়া সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে শিমোন চন্দ্র রায় (১৬) নামে এক স্কুলছাত্র চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। রবিবার বিকেলে বাড়ির পাশের ওই সীমান্তে গুলিবিদ্ধ হয় ওই স্কুলছাত্র। তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় প্রথমে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে ও পরে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। রাত ৯টায় রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় ওই স্কুল ছাত্র। শিমোনের বাড়ি শিংরোড প্রধানপাড়া সীমান্ত এলাকায়। সে ওই এলাকার পরেশ চন্দ্র রায়ের ছেলে। সে চাকলাহাট কেপি উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এবার এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছে।

স্থানীয়রা জানায়, শিংরোড প্রধানপাড়া সীমান্ত এলাকার মেইন পিলার ৭৬২ এর সাবপিলার ২ ও ৩ এর মাঝামাঝি সীমান্তঘেঁষে বাড়ি শিমোনের। রবিবার বিকেলে শিমোন তার বাবার সাথে বাড়ির পাশে নিজেদের পাট ক্ষেতে নেট দিয়ে বেড়া দিচ্ছিল। এ সময় পার্শ্ববর্তী ভারতের বিএসএফ ক্যাম্পের কয়েকজন সদস্য এসে তাদের বেড়া দিতে নিষেধ করে। পরে বিএসএফ সদস্যদের সাথে তাদের কথাকাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে শিমোনকে কাছে পেয়ে গুলি করে দেয় এক বিএসএফ সদস্য। গুলিটি তার পেট ফুটো হয়ে পিঠ দিয়ে বের হয়ে যায়। পরে তার পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসার পর গুরুতর আহত অবস্থায় উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

নীলফামারী ৫৬ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল মামুনুল হক ওই স্কুলছাত্রের গুলিবিদ্ধ হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় বিএসএফের কাছে প্রতিবাদ জানিয়ে কারণ জানতে চাওয়া হবে। বিষয়টি আমরা তদন্ত করে দেখছি।

Related Articles

Back to top button
Close