টেক

গোলাপী চাঁদের আভায় মোহময়ী আকাশ

এখনই সময় :

গোলাপী চাঁদের আভায় মোহময়ী হয়ে উঠল আকাশ। মহাজাগতিক দৃশ্য দেখা গেল পৃথিবীর বহু প্রান্তে। করোনা আতঙ্ক আর লকডাউনের মাঝেও অন্যরকম স্বাদ নিয়ে এলো যেন এই সুপার পিঙ্ক মুন।

এদিন পৃথিবী থেকে সবচেয়ে কাছে ছিল চাঁদ। চাঁদ ও পৃথিবীর গড় দূরত্ব ৩,৮৪,৪০০ কিলোমিটার। কিন্তু এই সুপার পূর্ণ চন্দ্রের প্রকাশের দিনে পৃথিবী থেকে মাত্র ৩,৫৬,৯০৭ কিলোমিটার দূরে ছিল চাঁদ। সুপারমুন তখনই হয়, যখন চাঁদ পৃথিবীর নিকটতম থাকে।

করোনার কারণে বাইরে বেরনো বন্ধ। এরই মধ্যে ভোরের আকাশ মোহময়ী করে তুলল সুপার পিঙ্ক মুন। এই মহাজাগতিক দৃশ্যের সাক্ষী থাকলেন অনেকেই।

বাংলাদেশের আকাশেও গোলাপী চাঁদের দর্শন মিলল খানিক। তবে একেবারে পূর্ণ গোলাপী হওয়ার আগেই সূর্যের আভায় আকাশে চাঁদ বিলীন হয়ে গেল। বিদেশের আকাশে পূর্ণ গোলাপী চাঁদের দর্শন মিলল বিভিন্ন ওয়েবসাইটে।

‘গোলাপী চাঁদ’ নামটি গোলাপী ফুলের নামের উত্তর ভিত্তি করে দেওয়া। আমেরিকার পূর্বাঞ্চলে বসন্তে ফুটে ওঠে ঐ ফুল। এটি মোটেও চাঁদের রঙ নয়। পুরো গোলাকার এই চাঁদটিকে স্প্রাউটিং গ্রাস মুন, এগ মুন এবং ফিশ মুন হিসেবেও ডাকা হয়।

এই নাম আমেরিকান অঞ্চল ও ঋতুর ওপর নির্ভর করে হয়। ২০২০ সালের শেষ সুপারমুনটি দেখা গিয়েছিল ৯ মার্চ থেকে ১১ মার্চের মধ্যে। মার্চের এই সুপারমুনকে ডাকা হয়েছিল সুপার ওয়ার্ম মুন নামে।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button
Close